কাবিনের টাকার জন্য চিঠি লিখে জীবন দিলো রুবেল

বরগুনার পাথরঘাটায় প্রেমিকার সঙ্গে অভিমান করে এক কিশোর আত্মহত্যা করেছে।শনিবার (১৯ মার্চ) বেলা ১১টার দিকে পাথরঘাটা পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে। নিহত কিশোরের নাম রুবেল (১৮)। রুবেল একই এলাকার আ: জলিল মিয়ার ছেলে এবং একটি বেসরকারি কোম্পানির ট্রাকের সহকারি হিসেবে চাকরি করতো। তার প্রেমিকা জাকিয়া পাথরঘাটা সদর ইউনিয়নের দক্ষিণ পাথরঘাটা গ্রামের মো: জামালের মেয়ে।

নিহত রুবেলের বড় ভাই সোহেল ও ছোট বোন মিম আক্তার জানান, প্রতিদিনের মতো সকালে ঘুম থেকে বাড়ির সবাই উঠলেও রুবেল না ওঠায় দরজা ধাক্কাধাক্কি করে কোনো সাড়া-শব্দ না পাওয়ায় বেড়ার ফাঁক দিয়ে গলায় রশি অবস্থায় ঝুলতে দেখা যায়। পরে দরজা ভেঙে ঝুলন্ত রুবেলকে উদ্ধার করে পাথরঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত্যু ঘোষণা করেন।

তারা আরও জানান, দীর্ঘদিন ধরে জাকিয়া আক্তার নামে এক মেয়ের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল রুবেলের। রুবেল ওই মেয়েকে বিয়ে করতে চাইলে মেয়ের বোনজামাই রুবেলের কাছে দুই লাখ টাকার কাবিন দাবি করে। ২ লাখ টাকা কাবিন দিলে তার শ্যালিকার সঙ্গে রুবেলের বিয়ে দিবে বলেন। রুবেল দুই লাখ টাকা কাবিন দিতে অক্ষমতা জানিয়ে দেওয়ায় জাকিয়াকে অন্যত্র বিয়ে দেওয়ার হুমকি দেয় তারা।

প্রেমিকা জাকিয়া আক্তার বোন ভগ্নীপতির পক্ষ নেওয়ায় অভিমান করে আত্মহত্যা করে প্রেমিক রুবেল। আত্মহত্যার আগে ঘরের খাটের ওপর একটি চিরকুট লিখে যায় রুবেল। তবে রুবেলের লেখা চিরকুট এখনো পুলিশ উদ্ধার করতে পারেনি।

পাথরঘাটা থানা ইনচার্জ (ওসি) মো. আবুল বাশার বলেন, মরদেহ সুরতহাল করে ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। আত্মহত্যার কারণ তদন্ত এবং চিঠি উদ্ধারে চেষ্টা অব্যাহত আছে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*