ছেলের কাঁধে বাপ্পি লাহিড়ীর শেষযাত্রা

ভারতের কিংবদন্তি সংগীতশিল্পী বাপ্পি লাহিড়ী মুম্বাইয়ের ক্রিটিকেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) রাত ১১ টা ৪৫ মিনিটে মারা যান। মৃত্যুকালে এই সংগীতশিল্পীর বয়স হয়েছিল ৬৯ বছর।

তার মৃত্যুর খবর প্রকাশ হয়, বুধবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) সকালে।
এদিন পরিবারের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, বাপ্পি লাহিড়ীর একমাত্র পুত্র বাপ্পা যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলসে বসবাস করেন। সেখান থেকে বৃহস্পতিবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) ভোরে ভারতে এসে পৌঁছাবেন। তারপর মুম্বাইয়ের পবন হংস মহাশ্মশানে বাপ্পি লাহিড়ীর শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে।

বৃহস্পতিবার বাপ্পা দেশে ফেরার পর বাবার অন্তিম দর্শন করেন। এরপর বাপ্পি লাহিড়ীর দেহ বাড়ি থেকে বের করা হয়। বাপ্পাকেও তার বাবার দেহ কাঁধে বহন করতে দেখা যায়। এ সময়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন মেয়ে রিমা লাহিড়ী। মরদেহের পেছনে চিৎকার করে ছুটতে দেখা যায় শোক বিহ্বল রিমাকে।

শেষযাত্রায় দেখা গেছে বাপ্পি লাহিড়ীর বন্ধু-অনুরাগীদের। ফুলের চাদরে সাজানো শিল্পীর দেহ নিয়ে ভিলে পার্লের পবন হংস শ্মশানের উদ্দেশে রওনা হয়েছে শববাহী গাড়ি। সেখানেই শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে।

এক মাস ভর্তি থাকার পর সোমবার হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছিলেন বাপ্পি লাহিড়ী। কিন্তু মঙ্গলবার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে আবার তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই মৃত্যু হয় তার।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*