ফুসফুসের ক্যান্সারের ঝুঁকিতে আছেন? জানিয়ে দিবে ৫ লক্ষণ

ফুসফুসের ক্যান্সার বেশ দ্রুত ছড়িয়ে পড়তে পারে। ফলে তার পূর্ব লক্ষণগুলি চিনে নেয়া দরকার। কী ভাবে চিনবেন ফুসফুসের ক্যান্সারের লক্ষণ?

যে কোনও রোগের কিছু পূর্ব সঙ্কেত থাকে। বিশেষ করে সে যদি কোনও কঠিন রোগ হয়, তবে তো থাকেই। তবে তা চিনতে পারা হল আসল বিষয়। রোগের সঙ্কেত যত তাড়াতাড়ি চেনা যাবে, ততই দ্রুত চিকিৎসকের সাহায্য চাওয়া যেতে পারে।

ক্যান্সারের মতো রোগের ক্ষেত্রে সঙ্কেত চেনা কিছুটা কঠিন। কারণ, শরীরের কোন অংশে ক্যানসার বাড়তে শুরু করেছে, তার উপর নির্ভর করে কোন উপসর্গ সবার আগে দেখা দেবে। মস্তিষ্কের ক্যানসারের লক্ষণের সঙ্গে সব সময়ে মিল থাকে না ফুসফুসের ক্যান্সারের প্রাক উপসর্গের।

কিন্তু ফুসফুসের ক্যান্সার বেশ দ্রুত ছড়িয়ে পড়তে পারে। ফলে তার পূর্ব লক্ষণগুলি চিনে নেয়া দরকার। কী ভাবে চিনবেন ফুসফুসের ক্যান্সারের লক্ষণ?

১) কাশি: দীর্ঘ দিন ধরে কাশি হয়েই যাচ্ছে? এমন অনেক সময়ে ঠান্ডা লেগে হয়। কিন্তু ফুসফুসের ক্যান্সারের ক্ষেত্রে কোনও কারণ ছাড়াই কাশি হতে দেখা যায়। প্রায় বছরভর লেগেই থাকে কাশির সমস্যা।

২) শ্বাসকষ্ট: শ্বাস নিতে কষ্ট হওয়ার সমস্যা বাড়ে ফুসফুসে ক্যান্সার বাড়তে থাকলে। কারণ, এই রোগের দাপটে বন্ধ হয়ে যেতে শুরু করে শ্বাস নেয়ার পথটিও।

৩) গলা ভেঙে যাওয়া: অনেকের ক্ষেত্রেই দেখা যায় এই সমস্যা। ফুসফুসে ক্যান্সার বাড়তে থাকলে তার প্রভাব গিয়ে পড়ে নানা স্তরে। যার কারণে গলার স্বর বদলে যায়। সব সময়েই গলা ভাঙা থাকে।

৪) গায়ে ব্যথা: যে কোনও ধরনের ক্যান্সারের ক্ষেত্রেই গায়ে ব্যথা একটি বড় সমস্যা হয়ে দাঁড়ায়। ফুসফুসের ক্যানসারের ক্ষেত্রে বিশেষ করে বুক, পিঠ ও কাঁধের আশপাশে বেশি ব্যথা হতে থাকে।

৫) ক্লান্তি: ক্যান্সারের অন্যতম উপসর্গ হল ক্লান্তি। কিন্তু ফুসফুসের ক্যান্সারের ক্ষেত্রে এই সমস্যা আরও বাড়ে। যেহেতু শ্বাস নিতে কষ্ট হয়, তাই শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা কিছুটা নীচের দিকে চলে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে। আর সে কারণেই ক্লান্তিও বাড়ে।

সূত্র: আনন্দবাজার

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*