বিবাহিত হওয়ার পরও গর্ভপাত, মানসিক শান্তি পেতে অন্য পুরুষের সঙ্গে যা করেছিলেন নায়িকা

প্রাক্তন স্বামী কর্ণ মেহরার সঙ্গে বিবাহিত থাকাকালীন অন্য এক পুরুষকে চুমু খেয়েছিলেন অভিনেত্রী নিশা রাওয়াল। সম্প্রতি কঙ্গনা রানাউতের ‘লক আপ’ অনুষ্ঠানে অভিনেত্রী নিজেই জানিয়েছেন সে কথা।
গত বছর কর্ণের বিরুদ্ধে গার্হস্থ্য হিংসার অভিযোগ এনেছিলেন নিশা। গ্রেফতার হয়েছিলেন কর্ণ। এরপর থেকে আর একসঙ্গে থাকেন না তারা।

অনুষ্ঠানে নিশা জানিয়েছিলেন, ২০১৪ সালে তার গর্ভপাত হয়। মানসিক শান্তি খুঁজে পেতে তখন অন্য এক পুরুষের ঘনিষ্ঠ হয়ে পড়েন তিনি। নিশার কথায়, আমার প্রাক্তন স্বামী জানতেন যে সেই পুরুষের সঙ্গে আমি দেখা করতাম। ধীরে ধীরে আমি ওর সঙ্গে ঘনিষ্ঠ হয়ে পড়ছিলাম। আমি কারো থেকে কোনো ভালবাসা পাচ্ছিলাম না। তাই স্বাভাবিকভাবেই ওর প্রতি আকৃষ্ট হয়ে পড়ছিলাম। ও আমার মনোবল বাড়াতে সাহায্য করেছিল। একদিন ওকে চুমু খেয়ে ফেলেছিলাম। আমার প্রাক্তন স্বামীকে সে দিনই জানিয়েছিলাম।

নিশা অভিযোগ করেছিলেন, তার গর্ভপাতের পর থেকেই তাকে মারধর শুরু করেন কর্ণ। তাদের ৯ বছরের দাম্পত্যে গার্হস্থ্য হিংসার ঘটনা ঘটছে গত ৭ বছর ধরেই। গত বছর নিশার বন্ধু ডিজাইনার রোহিত বর্মা অভিনেত্রীর একটি রক্তাক্ত ছবি ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেন। এর পরেই তারকা দম্পতির মধ্যে বিবাদের সূত্র ধরে গ্রেফতার হয়েছিলেন ‘ইয়ে রিশতা কেয়া কেহলাতা হ্যায়’-এর একদা নায়ক কর্ণ।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*