ভুয়া খবরের বিষয়ে এবার মুখ খুললেন অভিষেকের স্ত্রী

গত ‌বৃহস্পতিবার (২৪ মার্চ) ভোররাতে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মাত্র ৫৭ বছর বয়সে মারা গেলেন টলিউড অভিনেতা অভিষেক চট্টোপাধ্যায়। রেখে গেলেন স্ত্রী সংযুক্তা চট্টোপাধ্যায় এবং মেয়েকে। অভিনেতার মৃত্যুর খবর শোনার পর রীতিমতো শোকের ছায়া টলিউডে। প্রসেনজিৎ থেকে ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত সকলেই অভিনেতার মৃত্যুতে গভীর শোকপ্রকাশ করেছেন।

তবে তার মৃত্যুর পরপরেই গুঞ্জন ছড়ায় যে অভিষেকের মৃত্যুর পর আর্থিকভাবে বিপর্যস্ত গোটা পরিবার। অর্থকষ্টে ভুগছেন তারকার স্ত্রী ও কন্যা। এমনকি অভিষেকে ইন্ডাস্ট্রির বন্ধুরা এগিয়ে এসেছে তাঁদের সাহায্য করতে। তবে এসব খবরকে সম্পূর্ণ ভুয়া বলে জানিয়েছেন শোকে বিহ্বল অভিষেকের স্ত্রী সংযুক্তা চ্যাটার্জি। খবর জিনিউজের।

বুধবার (৩০ মার্চ) দুপুরে বিষয়টি নিয়ে অভিষেকের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে দীর্ঘ একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন তিনি। সংযুক্তা চ্যাটার্জি লেখেন, ‘এই কঠিন সময়ে সাইনা (মেয়ে) ও আমাকে একটু পার্সোনাল স্পেস দিন। এ শোকে আমাদের একটু একা থাকতে দিন।’ তিনি আরো বলেন, ‘বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় যে গুজব রটেছে, দয়া করে তা বিশ্বাস করবেন না। অভিষেক অসাধারণ একজন মানুষ ছিলেন।

সে আমাদের ছেড়ে চলে গেছে। কিন্তু পরিবারকে আর্থিকভাবে স্বাবলম্বী করেই গেছে। তার কাছে পরিবারই সব ছিল। অভিষেকের অবর্তমানে আমাদের যাতে কোনো কষ্ট না হয়, সেই বিষয়টি সে নিশ্চিত করে গেছে।’সংযুক্তা আরও লেখেন, ‘অভিষেকের কঠোর নীতিবোধ ছিল। সে জীবনে কখনও কারও কাছে হাত পেতে সাহায্য চায়নি। এ মুহূর্তে তার সেই নীতিগুলোকে মর্যাদা জানানো উচিত।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমি নিজেও আর্থিকভাবে স্বাবলম্বী। বর্তমানে আমি যুক্তরাজ্যভিত্তিক একটি ফিনটেস সংস্থায় কর্মরত আছি। আর তাই অভিষেকের পরিবারের কোনো আর্থিক সাহায্যের প্রয়োজন নেই। তার কোনো সাবেক সহকর্মীও সাহায্যের প্রস্তাব নিয়ে আসেননি।

এসবই মিথ্যা খবর। অভিষেকের চরিত্রে কখনও দাগ লাগেনি। এ ধরনের খবরে তার আত্মা কষ্ট পাবে। দয়া করে, আমরা অভিষেককে একজন অসাধারণ মানুষ হিসেবে মনে রাখি। আমরা যাতে মাথা উঁচু করে সম্মানের সঙ্গে বেঁচে থাকতে পারি, তার জন্য আপনাদের কাছে এই একটাই অনুরোধ। ট্রেন্ডিং গুজব থেকে দূরে থাকুন।’

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*