মাঝ-আকাশে বিমানে আগুন, জরুরি অবতরণ

বিমানটি মাঝ-আকাশে পাঁচ হাজার ফুট ওপর দিয়ে উড়ছিল। শনিবার (২ জুলাই) নয়াদিল্লি থেকে জাবালপুরে যাচ্ছিল। তখনই আকাশযানটির ভেতরে ধোঁয়া উড়তে দেখেন কেবিন ক্রুরা। পরে স্পাইসজেটের বিমানটি দিল্লি বিমানবন্দরে ফিরে যায়।

১ মিনিটে পড়ুন
বিমানটি নিরাপদে অবতরণের পরই যাত্রীদের বের করে আনা হয়। সংবাদ সংস্থা এএনআই একটি ভিডিও শেয়ার করেছে। তাতে দেখা যায়, যাত্রীরা কীভাবে পত্রিকা ও এয়ারলাইনের পুস্তিকা দিয়ে বাতাস করে ধোঁয়া তাড়ানোর চেষ্টা করছে।

পরপর দুর্ঘটনার মুখোমুখি হওয়ায় ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েছে স্পাইসজেট। এতে যাত্রীদের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন তৈরি হয়েছে। এর আগে ১৯ জুন পাখির সঙ্গে ধাক্কা লেগে আগুন ধরায় দিল্লিমুখী স্পাইসজেটের একটি ফ্লাইট বিমানবন্দরে ফিরে আসতে বাধ্য হয়।

আরও পড়ুন: যুক্তরাষ্ট্রে ১২৬ যাত্রী নিয়ে জরুরি অবতরণ, বিমানে আগুন

ফ্লাইটের যাত্রী সৌরভ চাবরা বলেন, ‘আজ সকালে আমরা দুর্ঘটনায় পড়ে যাই। স্পাইসজেট অনিরাপদ মনে হচ্ছে। একসময় যাত্রীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। তখন তারা দিল্লি বিমানবন্দরে অবতরণ করে। ভাগ্যক্রমে আমরা বেঁচে গেলেও দীর্ঘক্ষণ বিমানবন্দরে অপেক্ষা করতে হয়েছে। কারণ, স্পাইসজেটের কোনো ব্যাকআপ ফ্লাইট ছিল না।’

২৫ জুন, পাটনা-গোয়াহাটিতে স্পাইসজেটের একটি ফ্লাইট বাতিল করতে হয়েছে। কারিগরি ত্রুটির কারণে বিমানটি আকাশে উড়তে পারেনি। এর মধ্যে ৪ মে একই সমস্যার কারণে চেন্নাই-দুর্গাপুরের একটি বিমানও চেন্নাইয়ে ফিরে আসতে বাধ্য হয়।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*