রাতে বান্ধবীকে নিয়ে ঘুরতে বেরিয়ে চোর সন্দেহে গণপিটুনিতে মৃত্যু যুবকের

বার ডান্সার বান্ধবীকে নিয়ে রাতের অন্ধকারে ঘুরতে বেরনোই কাল হল। চোর সন্দেহে কলকাতার যুবককে বারুইপুরে পিটিয়ে খুন করলেন গ্রামবাসীদের একাংশ। সিমেন্টের একটি ল্যাম্পপোস্টে বেঁধে রাখা হয় ওই যুবককে। নিহতের নাম অভীক মুখোপাধ্যায় (৩৫)। বারুইপুর বিধানসভার বেগমপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের ২০০ নম্বর কলোনিতে ঘটেছে এই ঘটনা। খবর- আন্দবাজার ও জি নিউজ।

পুলিশ সূত্রের খবর, নেতাজিনগর থানার বাসিন্দা অভীক বৃহস্পতিবার রাত ১টা নাগাদ তাঁর মোটরবাইকে বান্ধবী প্রিয়াঙ্কা সরকারকে নিয়ে বারুইপুরের বেগ পুর গ্রাম পঞ্চায়েতের দু’শো কলোনির কাছে গিয়েছিলেন। সেখানেই রাতের অন্ধকারে গ্রামবাসীরা তাঁদের দেখতে পেয়ে চোর সন্দেহে গণধোলাই দেন অভীককে। ঘটনাস্থলে অচেতন হয়ে পড়েন তিনি।

রাত ২টো নাগাদ বারুইপুর থানার পুলিশের কাছে খবর আসে। পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে গ্রামবাসীরা পুলিশের গাড়ি আটকে বিক্ষোভ দেখায়। পুলিশের বিরুদ্ধে তারা অভিযোগ তোলে, ‘চোরকে বাঁচাতে এসেছে’। পুলিশ সেখান থেকে অভীককে উদ্ধার করে বারুইপুর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে এলে চিকিৎসকরা তাঁকে ‘মৃত’ ঘোষণা করেন। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছনোর পরে এক গ্রামবাসী প্রিয়ঙ্কাকে নিয়ে এসে বলেন, ‘এই তরুণী আমাদের বাড়ির মধ্যে লুকিয়ে ছিল।’

সূত্রের খবর, প্রতিবেশী প্রিয়াঙ্কাকে নিয়ে রাতের বেলা বাইকে ঘুরতে বেরিয়েছিলেন। তার পরেই এই মর্মান্তিক ঘটনা। তবে অভীকের বন্ধুদের একাংশের অভিযোগ, পরিকল্পনা করে তাঁকে খুন করা হয়েছে। প্রিয়ঙ্কার মায়ের দাবি, তাঁর মেয়ের মানসিক সমস্যা রয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে তিনি বন্ধুদের সঙ্গে ঘুরতে বার হয়েছিল। বারুইপুর থানা জানিয়েছে, ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*