শূন্য ভোট পেয়ে প্রার্থী বললেন, আমার ভোট গেল কই

সপ্তম ধাপের ইউপি নির্বাচনে জয়পুরহাটের পাঁচবিবিতে একটি ভোটও পাননি কুসুম্বা ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান ও বর্তমান ৯ নং ওয়ার্ড সদস্য প্রার্থী তালা প্রতীকের রবিউল ইসলাম রানা। তার ফলাফল পত্রে ভোটের সংখ্যা শূন্য। শূন্য ভোট পাওয়ার বিষয়টি নিয়ে আলোচনার জন্ম দিয়েছে এলাকায়।

এদিকে প্রার্থী নিজেই লজ্জায় ক্ষোভে শঙ্কিত। তিনি নিজের ভোটটি খুঁজে পেতে নির্বাচন অফিসের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন। ৭ম দফায় গত চলতি মাসের ৭ ফেব্রুয়ারি জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার কুসুম্বা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। এতে ওই ইউনিনের ৯ নম্বর ওয়ার্ডে সদস্য পদে তালা প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন কুসুম্বা ইউনিয়নের বর্তমান ইউপি সদস্য ও প্যানেল চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম রানা।

প্রতীক পাওয়ার পর বিজয়ী হতে অন্যান্য প্রার্থীর মতো কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে প্রচারণা চালান তিনি। ভোটের দিন কেন্দ্রে নিজের তালা প্রতীকে এজেন্টও ছিল। অথচ গত সোমবার দিন শেষে ভোট গণনা করে দেখা যায়, তিনি একটি ভোটও পাননি।

এরপর ফলাফল শিটে দেখা যায়, রবিউল ইসলাম রানা তালা প্রতীকে কোনও ভোট না পেলেও তার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ভূপেন চন্দ্র মন্ডল টিউবওয়েল প্রতীকে পেয়েছেন ৮৯৩, আজিজুল হক মোরগ প্রতীকে পেয়েছেন ৬৮২ ভোট ও ময়নুল ইসলাম আপেল প্রতীকে পেয়েছেন ৭৩৫ ভোট।

এ ব্যাপারে রবিউল ইসলাম রানা প্রশ্ন করেন, আমি, আমার স্ত্রী, পরিবারের অন্যান্য সদস্য, আত্মীয় স্বজন, শুভাকাঙ্ক্ষী, কর্মী-সমর্থক ও এজেন্ট কেউ কি আমাকে ভোট দেয়নি। কেউ যদি ভোট নাও দেয়, আমার নিজের ভোটটি গেল কোথায়?

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাচন অফিসার শহিদুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি সংশ্লিষ্ট প্রিসাইডিং অফিসার বলতে পারবেন। তবে তিনি চাইলে আদালতের আশ্রয় নিতে পারেন।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*