সেন্ট মার্টিনে সানি লিওন!

শিরোনাম দেখে অবাক হচ্ছেন? ভাবছে এইতো সেদিন ঢাকায় এক বিয়েতে এসে গেলেন সানি। যেখানে তার নাচের মুহূর্ত নেটদুনিয়ায় দাপিয়ে বেড়িয়েছে। কিন্তু এক সপ্তাহের মাথায় আবার কি করতে এলেন সানি? তাও আবার সেন্ট মার্টিনে? এমন প্রশ্ন জাগাটাই স্বাভাবিক!

কৌতূহল ভেঙে চলুন জেনে নেয়া যাক এর আসল রহস্য। মূলত সেন্ট মার্টিনে সানি লিওনের নামে রয়েছে একটি রিসোর্ট। যে রিসোর্টটির নাম ‘সানি কোরাল বিচ রিসোর্ট এবং সানি লিওন বিচ ক্যাফে’।

বলিউডের আইটেম গার্লের নামের এই রিসোর্ট সেন্ট মার্টিন যারা গিয়েছেন তাদের চোখ এড়ানো কঠিন। আর যারা যাবেন তাদের কাছেও কৌতুহল হয়ে থাকবে এটি। রিসোর্টটি আলীশান মানের ও আহামরি বিলাসবহুল না হলেও নামের কারণে কাছে যেতে মন চাইবে সানির। খোঁজ খবর নিতে মন চাইবে।

মূলত পর্যটকদের বাড়তি মনোযোগ আকর্ষণ করতেই এই নামে রিসোর্টটির নাম করণ বলে মন্তব্য স্থানীয় বাসিন্দা উসমানের।

বাংলাদেশের সর্ব দক্ষিণে বঙ্গোপসাগরের উত্তর-পূর্বাংশে অবস্থিত মাত্র ৮ বর্গকিলোমিটার আয়তনের দ্বীপ সেন্ট মার্টিন। বাংলাদেশের একমাত্র প্রবাল দ্বীপ এটি। কক্সবাজার জেলার টেকনাফ হতে প্রায় ৯ কিলোমিটার দক্ষিণে এবং মায়ানমারের উপকূল হতে ৮ কিলোমিটার পশ্চিমে নাফ নদীর মোহনায় অবস্থিত।

টেকনাফ জাহাজ করে ৯ কিলোমিটারের জলপথ পাড়ি দিয়ে সেন্টমার্টিন বাজারে পৌছানোর পর অটো রিকশা কিংবা ভ্যান করে জলপরি রোড ধরে কিছু দূর আগালেই চোখে পড়বে এই ‘সানি লিওন বিচ ক্যাফে রিসোর্ট’। রিসোর্টটির ম্যানেজার হিসেবে আছেন মহিউদ্দীন নামের একজন। এই নামে রিসোর্ট হওয়ার কারণ কি জানতে চাইলে তেমন কোনো উত্তর দিতে পারলেন না তিনি। তবে জানালেন, এই নামের কারনে পর্যকদের বাড়তি আগ্রহের জায়গায় আছে রিসোর্টটি।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*