স্কুল খুলে দেওয়ার দাবিতে গলায় প্ল্যাকার্ড ঝুলিয়ে বিয়ের পিঁড়িতে শিক্ষক!

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের স্কুলগুলো অবিলম্বে খুলে দেওয়ার দাবিতে গলায় প্ল্যাকার্ড ঝুলিয়ে বিয়ে করতে বসলেন স্থানীয় আলিপুরদুয়ারের এক শিক্ষক। প্ল্যাকার্ডে লেখা, “করোনা বিধি মেনে আমরা বিয়ে করতে পারলে, অনুরোধ স্কুলগুলোও খোলা হোক।”

অসীম দাস নামে ওই শিক্ষকের এই অভিনব পদ্ধতিতে আর্জি নজর কেড়েছে সবার।

আলিপুরদুয়ারের বাসিন্দা অসীম দাস পেশায় শিক্ষক। ওই জেলারই কুমারপাড়া মথুরাবাগান প্রাথমিক স্কুলে শিক্ষকতা করেন তিনি। সোমবার বিয়ে ছিল তার। মুখে মাস্ক পরে বিয়ের পিঁড়িতে তিনি বসেছিলেন গলায় একটি প্ল্যাকার্ড ঝুলিয়ে। যাতে অনুরোধ, স্কুলগুলো খুলে দেওয়া হোক।

তার সাফ প্রশ্ন, করোনা পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে যখন সব কাজ-ই চলছে, যখন সবকিছুই সচল রয়েছে, তাহলে স্কুল কেন অচল থাকবে? স্কুলগুলো কেন বন্ধ থাকবে?
তার স্পষ্ট কথা, এতে ছাত্রছাত্রীদের ভবিষ্যৎ নষ্ট হচ্ছে। আর তাই নিজের বক্তব্যকে জনসমক্ষে তুলে ধরতে বিয়ের পিঁড়িতেই গলায় প্ল্যাকার্ড ঝুলিয়ে বসেছেন তিনি।

প্রসঙ্গত, অবিলম্বে স্কুল খোলার দাবি নিয়ে সরব হয়েছেন অভিভাবকেরা। একই দাবিতে পানি গড়িয়েছে আদালতেও। এরই মাঝে স্কুল খোলার দাবি নিয়ে বিয়ের পিঁড়িতে বসলেন ওই শিক্ষক। বরবেশে স্বাস্থ্যবিধি মেনে মুখে মাস্ক, আর গলায় বরমাল্যের সঙ্গেই প্ল্যাকার্ড।

অসীম দাস নামে ওই শিক্ষক জানান, “নিজে স্কুলে শিক্ষকতা করি। সেখানকার ছাত্রছাত্রীদের স্কুল ছাড়া পড়াশোনার আর কোনও উপায় নেই। এতদিন ধরে স্কুল বন্ধ। ফলে তাদের পঠনপাঠনও ঠিকমতো হচ্ছে না। আমরা বেতন পাচ্ছি প্রতি মাসে। কিন্তু শিক্ষা? সেটা-ই বন্ধ হয়ে আছে। তাই অনুরোধ স্বাস্থ্যবিধি মেনে স্কুলগুলো খুলে হোক।” সূত্র: জিনিউজ

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*